০৪:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সন্ধানী প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনির নেতৃত্বে সন্ধানী, সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতি ও সন্ধানী ফাউন্ডেশনের একটি প্রতিনিধি দল রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছে।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) বঙ্গভবনে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় প্রতিনিধি দল সন্ধানীর সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করে। প্রতিনিধি দল মুমূর্ষু রোগীদের রক্তের জোগান এবং মরনোত্তর চক্ষুদানের মাধ্যমে সংগৃহীত কর্নিয়া প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে অন্ধত্ব দূরীকরণের বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরে।

সন্ধানীর কার্যক্রমের প্রশংসা করে রাষ্ট্রপতি বলেন, রক্তদান এবং মরনোত্তর চক্ষুদানে মানুষকে উদ্বুদ্ধ ও উৎসাহিত করতে সন্ধানী প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, মানুষকে উদ্বুদ্ধ করা গেলে রোগীদের জন্য বিশুদ্ধ রক্ত সংগ্রহ ও সরবরাহ নিশ্চিতের পাশাপাশি কর্নিয়াজনিত অন্ধত্ব অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব হবে। রাষ্ট্রপতি স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরণোত্তর চক্ষুদানে উৎসাহিত করতে দেশের প্রতিটি চিকিৎসা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি বাস্তবায়নের নির্দেশনা দেন।

রাষ্ট্রপতি সন্ধানীর কার্যক্রমে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন। সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সন্ধানী প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

আপডেট : ০৪:৪২:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনির নেতৃত্বে সন্ধানী, সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতি ও সন্ধানী ফাউন্ডেশনের একটি প্রতিনিধি দল রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছে।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) বঙ্গভবনে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় প্রতিনিধি দল সন্ধানীর সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করে। প্রতিনিধি দল মুমূর্ষু রোগীদের রক্তের জোগান এবং মরনোত্তর চক্ষুদানের মাধ্যমে সংগৃহীত কর্নিয়া প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে অন্ধত্ব দূরীকরণের বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরে।

সন্ধানীর কার্যক্রমের প্রশংসা করে রাষ্ট্রপতি বলেন, রক্তদান এবং মরনোত্তর চক্ষুদানে মানুষকে উদ্বুদ্ধ ও উৎসাহিত করতে সন্ধানী প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, মানুষকে উদ্বুদ্ধ করা গেলে রোগীদের জন্য বিশুদ্ধ রক্ত সংগ্রহ ও সরবরাহ নিশ্চিতের পাশাপাশি কর্নিয়াজনিত অন্ধত্ব অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব হবে। রাষ্ট্রপতি স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরণোত্তর চক্ষুদানে উৎসাহিত করতে দেশের প্রতিটি চিকিৎসা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি বাস্তবায়নের নির্দেশনা দেন।

রাষ্ট্রপতি সন্ধানীর কার্যক্রমে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন। সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।