০৫:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বদলেছে খুলনার গ্রামগুলো

উন্নয়নের ছোঁয়ায় বদলে গেছে খুলনার গ্রামগুলো। সড়ক, সেতু ও ভবন নির্মাণের ফলে পাল্টে গেছে গ্রামের চিত্র। শহরের সুবিধা এখন পাওয়া যাচ্ছে গ্রামেই। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হওয়ায় এখানকার উৎপাদিত কৃষি পণ্য সহজেই চলে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। ফলে এ অঞ্চলে গড়ে উঠছে নতুন নতুন বাজার। উন্নত হচ্ছে স্থানীয়দের জীবনমান।

এই চিত্র খুলনার বিভিন্ন উপজেলা ও গ্রামীণ সড়কের। এক সময়ে যেসব সড়ক দিয়ে পায়ে হেটে চলা যেত না সেসব সড়ক এখন পিচ ঢালা চকচকে। সাঁকোর স্থানে নির্মাণ করা হয়েছে সেতু ও কালভার্ট। ফলে জেলার এক স্থান থেকে আরেক স্থানে কোনো ভোগান্তি ছাড়াই যাতায়াত করতে পারছে মানুষ। এছাড়াও, জেলার অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে চোখে পড়ার মতো। গড়ে উঠেছে বহু সরকারি দপ্তর, শিক্ষা ও সেবা প্রতিষ্ঠানসহ নতুন নতুন হাটবাজার।

শহরের সুবিধা গ্রামে পৌঁছে দিতে সরকারের এই উদ্যোগে খুশি এ অঞ্চলের মানুষ।

সড়ক ও অবকাঠামোর উন্নয়ন হওয়ায় জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের পাশাপাশি গ্রামীণ অর্থনীতিতে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটছে বলে জানান এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী মো. রবিউল ইসলাম।

বড় বড় কযেকটি প্রকল্পের কাজ শেষ হলে স্থানীয়রা আরও সুবিধা পাবে বলেও জানান তারা।

বদলেছে খুলনার গ্রামগুলো

আপডেট : ০৭:২০:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

উন্নয়নের ছোঁয়ায় বদলে গেছে খুলনার গ্রামগুলো। সড়ক, সেতু ও ভবন নির্মাণের ফলে পাল্টে গেছে গ্রামের চিত্র। শহরের সুবিধা এখন পাওয়া যাচ্ছে গ্রামেই। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হওয়ায় এখানকার উৎপাদিত কৃষি পণ্য সহজেই চলে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। ফলে এ অঞ্চলে গড়ে উঠছে নতুন নতুন বাজার। উন্নত হচ্ছে স্থানীয়দের জীবনমান।

এই চিত্র খুলনার বিভিন্ন উপজেলা ও গ্রামীণ সড়কের। এক সময়ে যেসব সড়ক দিয়ে পায়ে হেটে চলা যেত না সেসব সড়ক এখন পিচ ঢালা চকচকে। সাঁকোর স্থানে নির্মাণ করা হয়েছে সেতু ও কালভার্ট। ফলে জেলার এক স্থান থেকে আরেক স্থানে কোনো ভোগান্তি ছাড়াই যাতায়াত করতে পারছে মানুষ। এছাড়াও, জেলার অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে চোখে পড়ার মতো। গড়ে উঠেছে বহু সরকারি দপ্তর, শিক্ষা ও সেবা প্রতিষ্ঠানসহ নতুন নতুন হাটবাজার।

শহরের সুবিধা গ্রামে পৌঁছে দিতে সরকারের এই উদ্যোগে খুশি এ অঞ্চলের মানুষ।

সড়ক ও অবকাঠামোর উন্নয়ন হওয়ায় জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের পাশাপাশি গ্রামীণ অর্থনীতিতে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটছে বলে জানান এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী মো. রবিউল ইসলাম।

বড় বড় কযেকটি প্রকল্পের কাজ শেষ হলে স্থানীয়রা আরও সুবিধা পাবে বলেও জানান তারা।